শিরোনাম
বা’স’র রা’ত তাই চি’ৎকা’র করেনি ছোট্ট রিমি জনগণ ভোট দেবে না জেনেই বিএনপি সরে দাঁড়িয়েছে: ওবায়দুল কাদের মা হওয়ার ইচ্ছা প্রভার, পাচ্ছেন না সন্তানের বাবা দুদকের চিঠি ইমিগ্রেশনে পৌঁছানোর ১৩ মিনিট আগেই দেশত্যাগ করেন পি কে হালদার গবেষণায় নকল করিনি: সামিয়া রহমান নিজের সন্তান স্নেহে ক্ষু;ধার্ত ছা;গল ছা;নাকে দুধ পান করাচ্ছে গো-মাতা, ভাইরাল মা;তৃত্বের ভিডিও লোভ দেখিয়ে ম্যাডাম আমার সব কাপড় খুলে শু’ইয়ে দিতোঃ অভিযোগ স্কুল ছাত্রের ! রাজশাহীতে বাস চলাচল বন্ধ ৭ বছরের ছেলেকে নিয়ে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, খোঁজ দিলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার যারা পুলিশের সমালোচনা করে তাদের মুখে ছাই পড়ুকঃ আইজিপি

সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১১:১১ অপরাহ্ন

কোনরকম একটা শাড়ি পড়ে তিন বার কবুল বলে সাইন করবো ভেবেছিলাম: শাওন

বাংলাদেশের সব অন্যতম জনপ্রিয় একজন লেখক হুমায়ূন আহমেদ। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি বাংলাদেশের লেখার জগতে একাকী’ রাজ করে গেছেন। আজ তিনি নতুন করে আলোচনায় থাকার কারন একটাই। আর তআ হলো আজ শাওন- হুমায়ূনের বিয়ের ১৬ বছর পূর্তি। আর তার স্মৃ’তি প্রতি মুহূর্তে বহন করে চলেছেন মেহের আফরোজ শাওন। শনিবার তাদের বিয়ের ষোলো বছর পূর্ণ হলো। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ও হ‌ুমায়ূনের দুটি ছবি শেয়ার করে সেই কথা জানালেন বরাবরের মতো।

২০০৪ সালের ১২ ডিসেম্বর বিয়ে করেন হ‌ুমায়ূন ও শাওন। তাদের রয়েছে দুই ছেলে নিষাদ ও নিনিত। সমাজের চোখে বেকার নূপুর ভাড়া থাকেন লাখ টাকা ভাড়ার ফ্ল্যাটে, টার্গেট করতেন ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিদে এবার পদ্মা সেতু নিয়ে পাকিস্তানের করা সেই মন্তব্য সাড়া ফেললো জীবনের শেষ প্রান্তে এসে সংকটে জনপ্রিয় অভিনেতা মামুনুর রশিদ,

জানালেন কষ্টে যাচ্ছে দিনকাল ইনু জানিয়ে দিলেন কারা ভেঙেছে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য দিনটি নিয়ে বছর কয়েক আগে শাওন লেখেন, ”খুব সাদামাটা ভাবেই হওয়ার কথা ছিল আমার বিয়েটা… ভেবেছিলাম কোনরকম একটা শাড়ি পড়ে তিন বার কবুল বলা আর একটা নীল রঙের কাগজে কয়েকটা সাইন…হ‌ুমায়ূনের বন্ধুরা আছেন তার পাশে.., আর আছেন তার মা…

প্রকাশক মাজহারুল ইসলামের মা (আমার শাশুড়ি মার প্রিয় বান্ধবী) যখন তার কাছে বিয়ের খবর জানিয়ে আমাদের জন্য দোয়া চাইতে গেলেন তখন তিনি স্পষ্টভাবে বললেন তার বড় পুত্রের বুদ্ধি এবং দূরদর্শিতার প্রতি তার পূর্ণ আস্থা আছে… বড় পুত্র যখন বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তখন নিশ্চয়ই নিজের ভালো বুঝেশুনেই নিয়েছে… নিজে উপস্থিত না হলেও প্রিয় পুত্রের সিদ্ধান্তের প্রতি তার শুভকামনা সব সময়ই থাকবে…শাওন আমার পরিবারের কেউ আমার সঙ্গে নেই..,এমনকি নেই কোনো বন্ধুও…

সবাই ত্যাগ করেছে আমাকে…ডিসেম্বরের ১১ তারিখ হ‌ুমায়ূন আমাকে জো’র করে পাঠালেন নিউমার্কেটে… উদ্দেশ্য একখানা হলুদ শাড়ি কিনে আনা, যেন সন্ধ্যায় আমি হলুদ শাড়ি পড়ে নিজের গায়ে একটু হলুদ মাখি… বললেন- ’তোমার নিশ্চয়ই বিয়ে নিয়ে, গায়েহলুদ নিয়ে অনেক স্বপ্ন ছিল… আমাকে বিয়ে করার কারণে কোনোটাই পূরণ হচ্ছে না… আমি খুবই লজ্জিত… তারপরও আমি চাই আজ সন্ধ্যায় তুমি হলুদ শাড়ি পড়ে ফুল দিয়ে সাজবে… নিজের জন্য..,

তোমা’র ভবিষ্যৎ সন্তানের জন্য… আমার জন্য… আমরা দুজনে মিলে আজ গায়েহলুদ করবো আমি একা একা শাড়ি কিনলাম… গাঁদা ফুলের মালা কিনলাম… কী’ মনে করে একটা লাল পাঞ্জাবিও কিনে ফেললাম… সন্ধ্যায় নিজে নিজে সাজলাম… বাথরুমের আয়নায় নিজেকে দেখে আমার চোখ ফেটে পানি চলে আসলো… চোখ মুছে খোঁপায় কানে গাঁদাফুলের মালা গুঁজলাম… হঠাৎ শুনি বাথরুমের দরজায় ধুমধাম শব্দ… দরজা খুলে বেরিয়ে দেখি ডালা কুলো হাতে মাজহার ভাইয়ের স্ত্রী’ স্বর্ণা ভাবি, পাশে ৩ বছরের ছোট্ট অমিয়… একটু দূরে লাল পাঞ্জাবি পরা হ‌ুমায়ূন ঠোঁট টিপে হাসছেন… হই হই করে ঘরে ঢুকল হ‌ুমায়ূনের আরও বন্ধু আর তাদের স্ত্রীরা… তারা আমার হাত ধরে টেনে নিয়ে গেল পাশের রুমে…চার-পাঁচটা প্রদীপ দিয়ে সাজানো ছোট্ট একটি পাশ… সেখানে হলুদের কী’ স্নিগ্ধ ছিমছাম আয়োজন..!

লেখক মইনুল আহসান সাবের ভাইয়ের স্ত্রী’ কেয়া ভাবি আর মাজহার ভাইয়ের স্ত্রী’ স্বর্ণা ভাবি আমার আর হ‌ুমায়ূনের হাতে রাখি ও পড়িয়ে দিল… সেকি খুনসুটি..! সেকি আল্লাদ..! সে এক অন্যরকম গায়েহলুদ… আরেক ভাবি নামিরা স-ব মেয়েদের হাতে মেহেদি দিয়ে দিল… আমার আর হ‌ুমায়ূনের দুই গাল কাঁচা হলুদে রাঙা…।২০১২ সালে যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন জনপ্রিয় এই লেখক। এর পর থেকেই তার বড় একটি শুণ্যতা অভাব হচ্ছে দেশের লেখার জগতে। তার পরেও মানুষ তাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরন করে থাকে।


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।