শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:২৮ অপরাহ্ন

ভক্তদের ধৈর্য ধরার আহ্বান সাকিবের

ক্রীড়া ডেস্ক : জুয়াড়ির প্রস্তাব পাওয়ার তথ্য গোপন রাখায় আইসিসি’র নিষেধাজ্ঞা পেয়ে এক বছরের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এই মুহুর্তে সাকিবের ওপর দিয়ে কষ্টের ঝড় বয়ে যাচ্ছে। কারণ তাকে ছাড়াই ভারতে খেলতে গেল টাইগার বাহিনী।

এদিকে ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞা পেলেও ভক্তদের সমর্থন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের মন ছুঁয়ে গেছে। সে কারণে ভক্তদের অকুণ্ঠ ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে সাকিবকে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ায় আইসিসি ও বিসিবির প্রতি যারা ক্ষুব্ধ হয়েছেন, তাদেরও ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার (২ নভেম্বর) রাত ১টার দিকে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে একটি পোস্টে এ আহ্বান জানিয়েছেন সাকিব আল হাসান।

তিন তিন বার জুয়াড়ির প্রস্তাবের তথ্য গোপন রাখার ঘটনা আইসিসি’র কোড অব কনটাক্ট ভঙ্গ করায় গত ২৯ অক্টোবর সব ধরনের ক্রিকেটে সাকিবকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করে আইসিসি।

তবে বিষয়টি তদন্তের সময় প্রস্তাব পাওয়ার ঘটনা স্বীকার ও তদন্তে পূর্ণ সহযোগিতা করায় তার শাস্তি একবছর স্থগিত করা হয়। সে হিসাবে ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর ফের মাঠে নামতে পারবেন সাকিব।

নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার পর থেকেই সাকিব ভক্ত ও সমর্থকরা আইসিসি’র প্রতি ক্ষুব্ধ হয়েছেন। কেবল আইসিসি নয়, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) বিরুদ্ধেও অনেকেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তবে সাকিব সবাইকে ধৈর্য ধারণ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

পোস্টের শুরুতেই সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সাকিব বলেন, প্রথমেই আমি আমার সব ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের বলতে চাই, আমার ও আমার পরিবারের এই কঠিন সময়ে আপনাদের নিঃশর্ত সমর্থন ও ভালোবাসা আমাকে ছুঁয়ে গেছে। এই সমর্থনের কারণে নিজেকে ধন্য মনে হয়েছে। গত কয়েকদিনে আমি আগের চেয়ে অনেক বেশি উপলব্ধি করছি, দেশকে প্রতিনিধিত্ব করার প্রকৃত অর্থ।

আমার ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞায় আমার ভক্ত-সমর্থক যারা সংক্ষুব্ধ হতে পারেন, তাদের শান্ত থাকার ও ধৈর্য ধারণের অনুরোধ জানাচ্ছি।

সাকিব তার নিষেধাজ্ঞার প্রক্রিয়া ব্যাখ্যা করে বলেন, আমি খুব পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আইসিসি’র দুর্নীতিবিরোধী ইউনিটের (এসিইউ) পুরো তদন্ত ছিল গোপন। আমার ওপর নিষেধাজ্ঞার যে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল, তার মাত্র কয়েকদিন আগে বিসিবি সেটা আমার কাছেই জানতে পারে। এ পরিস্থিতিতে বিসিবি সব বিষয়ে আমাকে পূর্ণ সমর্থন দিয়েছে এবং আমার অবস্থান বুঝতে পেরেছে, যে কারণে আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।

সাকিব আল হাসান বলেন, আমি এটা বুঝতে পারছি যে, কেন অনেকেই আমাকে সহায়তার প্রস্তাব দিচ্ছে। আমি সত্যিই এটিকে স্বাগত জানাই। যাই হোক, এখানে একটি প্রক্রিয়া রয়েছে এবং আমি আমার নিষেধাজ্ঞা মেনে নিয়েছি। কারণ আমি মনে করি, সেটিই ছিল সঠিক পদক্ষেপ।

দেশসেরা এই অলরাউন্ডার বলেন, কীভাবে ক্রিকেটে ফিরব এবং বাংলাদেশের হয়ে ২০২০ সালে আবার মাঠে নামব, সেদিকেই এখন আমার সব মনোযোগ কাজ করছে। যতদিন পর্যন্ত মাঠে ফিরতে না পারছি, ততদিন পর্যন্ত আমার জন্য দোয়া করবেন। ধন্যবাদ।

স্বদেশ টুয়েন্টিফোর // জেসি / এবিএম


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।