রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০৯:৩৩ অপরাহ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যু নিয়ে লুকোচুরি-বিভ্রান্তি!

বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকা: সারা দেশে ডেঙ্গু রোগ ছড়িয়ে পড়েছে। দিন দিন আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃত্যুর মিছিল বাড়ছেই। ডেঙ্গু মোকাবিলায় ব্যাপকভাবে কাজ করছে সরকার। কাজ হচ্ছে বেসরকারিভাবেও। কিন্তু কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হচ্ছে না। তবে ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে লুকোচুরি হচ্ছে। এ নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে।

বুধবার (৭ আগস্ট) ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে অনুষ্ঠিত এক বৈজ্ঞানিক সেমিনারে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছিলেন, ‘মুগদা হাসপাতালে এসে একটি ভালো চিত্র পেলাম। এখানে ৩৮৭ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। এক হাজার ২০০ জনের মতো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন। চিকিৎসকরা ভালো সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। এ কারণে এ হাসপাতালে ডেঙ্গুতে একজনেরও মৃত্যু হয়নি।

এ সময় স্থানীয় এমপি সাবের হোসেন চৌধুরী মঞ্চের চেয়ার থেকে উঠে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হাতে একটি কাগজ দেন। ওই কাগজ দেখে মন্ত্রী বলেন, তারা বলছেন- এ হাসপাতালে ১১ জন মারা গেছে। কিন্তু কতজন ডেঙ্গুর কারণে মারা গেছে, তা নিশ্চিত করতে পারেননি।

এর আগে ৩ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসা কার্যক্রম পরিদর্শনে গিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, ডেঙ্গু জ্বরে এ পর্যন্ত  ১৪ জন মারা গেছে। তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরে সাংবাদিকরা মন্ত্রীর কাছে ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সুনির্দিষ্ট সংখ্যা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এ ব্যাপারে ভালোভাবে জেনে পরে জানাতে পারব।’

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত কতজনের মৃত্যু হয়েছে, তার হিসাব খোদ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাছেও নেই। অন্যদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর শুক্রবার (৯ আগস্ট) পর্যন্ত ৩১ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছে। তবে বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা ৯৫ জন।

আবার বিভিন্ন গণমাধ্যমে ভিন্ন ভিন্ন মৃতের সংখ্যাও প্রকাশ পাচ্ছে। কোনো কোনো গণমাধ্যম বলছে ১১০ জনের কথা, কোনোটি আবার বলছে ১২০ জনের কথা। এতে করে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছে। সাধারণ মানুষের মধ্যেও ক্ষোভ বাড়ছে। প্রশ্ন জাগছে, ডেঙ্গু আক্রান্ত মৃতের সঠিক সংখ্যা প্রকাশে বাধা কোথায়?

সরকারের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা সংস্থা (আইইডিসিআর) মৃত্যুর হিসাব নিশ্চিত করে থাকে। গত জুলাই মাসে এ লক্ষ্যে আট সদস্যের একটি পর্যালোচনা কমিটিও গঠন করা হয়। মৃত্যু পর্যালোচনা কমিটির এ কার্যক্রম নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. মাহমুদুর রহমান বলেন, কোনো দেশই মৃত্যুর এ ধরনের পর্যালোচনা করে না। পর্যালোচনা তখনই প্রয়োজন হয়, যখন কাউকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রশ্ন আসে। হাসপাতালে পরীক্ষা করে ডেঙ্গু নিশ্চিত করার পর রোগী মারা গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পাওয়া এই তথ্যই তো যথেষ্ট। কিন্তু সে ঘোষণা মেনে না নিয়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি করা হচ্ছে। হাসপাতাল থেকে বলা হচ্ছে, ডেঙ্গুতে মারা গেছে; আর আইইডিসিআর বলছে, এটি ডেঙ্গু নয়। তাহলে তো মানুষ বিভ্রান্ত হবেই।

তবে ডা. মাহমুদুর রহমানের এ বক্তব্যের সঙ্গে একমত নন ডেঙ্গুজনিত মৃত্যু পর্যালোচনায় গঠিত আট সদস্যের কমিটির প্রধান ও আইইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা। তার মতে, একটি দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান হিসেবে সম্পূর্ণভাবে নিশ্চিত না হয়ে তারা কোনো তথ্য প্রকাশ করতে পারেন না।

এদিকে মৃতের মতো আক্রান্তের সংখ্যা নিয়েও বিভ্রান্তি আছে। কারণ রাজধানীর মাত্র ৪০টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল এবং সারা দেশের সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর হিসাব করে এ তালিকা তৈরি করা হয়। অথচ এর বাইরেও বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে রোগীরা চিকিৎসা নিচ্ছেন। আবার সরকারি হাপাতালের জরুরি ও বহির্বিভাগ থেকে সেবা নেওয়া রোগীদের এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে না। সংশ্নিষ্টরা বলেছেন, আক্রান্ত ডেঙ্গু রোগীর প্রকৃত সংখ্যা এই প্রক্রিয়ায় বের করা সম্ভব হবে না। জানা হেছে, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ৩৪ হাজার ৬৬৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

বিএমএর সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ডা. রশিদ-ই মাহবুব বলেন, জ্বর নিয়ে হাসপাতালে গেলে প্রথমেই পরীক্ষা করা হয়। ওই পরীক্ষায় ডেঙ্গু শনাক্ত হওয়ার পর তার মৃত্যু হলে সেটিকে তো ডেঙ্গুতে মৃত্যুই বলতে হবে। হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গুতে মৃত্যু ঘোষণা দেওয়া হয়। কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সেটি মানছে না।

তারা আরও যাচাই-বাছাই করছে। হাসপাতালে ভর্তির পর ল্যাবে পরীক্ষা করেই তো তার শরীরে ডেঙ্গু শনাক্ত করা হয়েছে। তাহলে আবার পর্যালোচনা কেন করতে হবে? কী কারণে তারা এটি করছেন, তা বোধগম্য নয়। এতে করে মৃত্যু নিয়ে তথ্যগত বিভ্রান্তি বাড়বে।

স্বদেশ টুয়েন্টিফোর//জেসি/আরএম


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।