সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:১১ পূর্বাহ্ন

দেশের ক্যাসিনোর নেপথ্যে ১১ নেপালি

ঢাকা ব্যুরো : রাজধানী ঢাকাতে অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসার নেপথ্যে উঠে এসেছে ১১ নেপালির নাম। জুয়ার প্রশিক্ষণ, বিদেশি জুয়াড়ি সরবরাহ, অপারেটিং সিস্টেম নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি অনেকগুলো ক্যাসিনোর মালিক বনে বসেছেন এরা। প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় বিদেশিরা দেশে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে।

বিনোদনকেন্দ্রের নামে সিঙ্গাপুর এবং লাস ভেগাসের আদলে রাজধানীতে গড়ে তোলা হয় এ ক্যাসিনো। আলো ঝলমলে জাঁকজমকপূর্ণ জুয়ার আসরে প্রতিদিন চলতো কোটি কোটি টাকার লেনদেন। আর এসবের নেপথ্যে নেপালি জুয়াড়িচক্র।

জানা গেছে, ১১ নেপালির হাত ধরে বাংলাদেশে ক্যাসিনোর বিস্তার। এদের মধ্যে রয়েছেন দিনেশ শর্মা, রাজকুমার, বিনোদ, দিনেশ কুমার, ছোট রাজকুমার, বল্লভ, বিজয়, সুরেশ পাটেল, কৃষ্ণা, জিতেন্দ্র, নেপালি বাবা। এর মধ্যে দিনেশ শর্মা এবং রাজকুমারকে বাংলাদেশের ক্যাসিনো জগতের ডন বলা হয়ে থাকে। আর নেপালি বাবা, বল্লভ ও বিজয় ক্যাসিনো ব্যবসায় প্রশিক্ষণ ও সহায়তার কাজ করতো।

রাজধানীতে সক্রিয় বেশির ভাগ আধুনিক ক্যাসিনোর অপারেটিং সিস্টেম নিয়ন্ত্রণ করেন এরা। অনেক ক্যাসিনোর মালিকও হয়ে গেছেন এরা। মতিঝিলের দিলকুশা এবং এলিফ্যান্ট রোডের অ্যাজাক্স ক্লাব নিয়ন্ত্রণ করে নেপালের নাগরিক রাজকুমার। মালিবাগের সৈনিক ক্লাবের নিয়ন্ত্রক সুরেশ ও জিতেন্দ্র।

র‌্যাব জানায়, বিদেশিরা বাংলাদেশে এভাবেই বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে। অপরাধ বিশ্লেষকরা বলছেন, কাস্টমসের গাফিলতি এবং প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় অবৈধভাবে বিদেশিরা বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর ) রাজধানীর বেশ কয়েকটি ক্যাসিনোতে অভিযান চালায় র‌্যাব। এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয় ঢাকা মহানগর দক্ষিন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের তার কাছে ক্যাসিনো ব্যবসা সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য পাওয়া গেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে নিকেতনে আরেক যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের অফিসে অভিযান চালায় র‌্যাব। তার অফিস থেকে নগদ ১০ কোটি এবং দুইশ’ কোটি টাকার এফডিআর চেকসহ তাকে আটক করা হয়। অভিযানে অবৈধ অস্ত্র, ম্যাগজিন, স্বর্ণালংকার ও প্রচুর গুলি জব্দ করা হয়েছে।

জি কে শামীম যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক। একই সঙ্গে তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। জানা গেছে, বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকাকালে শামীম ছিলেন ঢাকা মহানগর যুবদলের সহ সম্পাদক এবং বিএনপির কেন্দ্রীয় প্রভাবশালী নেতা ও সাবেক গণপূর্তমন্ত্রী মির্জা আব্বাসের ঘনিষ্ঠ।

স্বদেশ টুয়েন্টিফোর //জেসি /এবিএম


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।