সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:১১ পূর্বাহ্ন

রোহিঙ্গাদের এনআইডি : নানা সংস্থার সম্পৃক্ততা দেখছে দুদক

চট্টগ্রাম : রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট পাইয়ে দেয়ার নেপথ্যে চট্টগ্রামের তিনটি ট্রাভেল এজেন্সি, পাসপোর্ট অফিস এবং বিভিন্ন জনপ্রতিনিধির অফিসের কর্মীরা জড়িত থাকার তথ্য পেয়েছে দুদকের এনফোর্সমেন্ট টিম।

সম্প্রতি নগরে অবস্থিত দুটি আঞ্চলিক পাসপোর্ট ও ভিসা কার্যালয়ে প্রাথমিক অনুসন্ধান শেষে এ তথ্য জানিয়েছে দুদক।

অনুসন্ধানের সময় ওই দুটি পাসপোর্ট অফিস থেকে রোহিঙ্গা সন্দেহে ১০১ জনের পাসপোর্ট আবেদনের নথিপত্র জব্দ করেছে দুদক।

জব্দ করা পাসপোর্ট আবেদনের নথির মধ্যে নগরের মনসুরাবাদে বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিস থেকে পাঁচটি, পাঁচলাইশে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে ৭৪টি, নগর বিশেষ শাখা থেকে ২টি এবং কক্সবাজার পাসপোর্ট অফিস থেকে ২০টি।

পাসপোর্ট কার্যালয়গুলোতে আরও অনুসন্ধানের অনুমোদন চেয়ে কমিশনের কাছে চিঠি পাঠাবে দুদকের এনফোর্সমেন্ট টিম। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুদকের চট্টগ্রাম জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের-২ সহকারী পরিচালক রতন কুমার দাশ।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, গত পাঁচ মাসের ব্যবধানে নগরের পাঁচলাইশ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে ২৮ জন এবং মনসুরাবাদ চট্টগ্রাম বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিস থেকে ৫০জন মোট ৭৮জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

দুদক কর্মকর্তা শরীফ উদ্দিন বলেন, ‘প্রাথমিক অনুসন্ধানে দেখা গেছে- পাসপোর্ট আবেদনগুলোর সঙ্গে জমা দেওয়া সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধিদের সিল-স্বাক্ষর করা কাগজপত্রগুলোর অধিকাংশই জাল। ভুয়া সনদ তৈরি করে জমা দিয়ে রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট পাইয়ে দিচ্ছেন এমন তিনটি ট্রাভেল এজেন্সির নামও পাওয়া গেছে। এ প্রতিষ্ঠানগুলো পাঁচলাইশ এলাকায় অবস্থিত আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের আশপাশে। তাদের বিরুদ্ধে আরও অনুসন্ধানের জন্য কমিশনের অনুমতি চাওয়া হবে বলে জানান দুদকের এ কর্মকর্তা।

স্বদেশ টুয়েন্টিফোর//এমআর/এমএমআর


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।