বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ০৫:১৭ পূর্বাহ্ন

যেভাবে জব্বারের বলিখেলা

চট্টগ্রাম: আবদুল জব্বারের ঐতিহাসিক বলিখেলাকে ঘিরে মেলা জমতে শুরু করেছে। ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে পণ্য সামগ্রীর পসরা নিয়ে স্টল সাজানোর কাজ প্রায় শেষ। আজ মঙ্গলবার প্রথমদিন লোক সমাগম এবং কেনাকাটাও ছিল চোখে পড়ার মতো। যদিও আনুষ্ঠানিকভাবে কাল বুধবার থেকেই তিনদিনের মেলা শুরুর কথা।

এটি জব্বারের বলিখেলার ১১০তম আসর। ১৯০৯ সালে এই ঐতিহাসিক কুস্তি প্রতিযোগিতাটি শুরু হয়।চট্টগাম মহানগরীর কেন্দ্রস্থল বদরপাতি এলাকার ব্যবসায়ী আবদুল জব্বার সওদাগর। এদেশের ইতিহাসে একটি আলোচিত নাম তিনি। তৎকালীন ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনে এই অঞ্চলের যুব সমাজকে সংগঠিত করার লক্ষ্যে তিনি একটি উদ্যোগ গ্রহন করেছিলেন।সেটি হচ্ছে আলোচিত এই বলিখেলা।

আজ থেকে প্রায় একশ/ সোয়া বছর আগে এদেশের রাজনৈতিক ও সামাজিক প্রেক্ষাপট ছিল সম্পূর্ন ভিন্ন। এখনকার মতো অত্যাধুনিক অস্ত্র শস্ত্র ছিলনা। ব্রিটিশের সুশিক্ষিত ও দক্ষ সেনাদের মোকাবেলায় এখানকার মানুষের তেমন কিছুই ছিলনা। ছিল কেবল দেশপ্রেমের চেতনায় উজ্জীবিত মানুষের মনোবল, আর তার সাথে ছিল দৈহিক শক্তির সম্মিলন।

আবদুল জব্বার সওদাগর চট্টগ্রাম ও আশে পাশের অঞ্চলের যুবকদের সংগঠিত করার লক্ষ্যে আয়োজন করেন কুস্তি প্রতিযোগিতার। দলে দলে তরুণ যুবারা এসে এই খেলায় অংশ নিতে থাকেন।লোক মুখে চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে এই আয়োজনের কাহিনী। কালক্রমে এটি উদ্যোক্তার নামেই ব্যাপক পরিচিতি লাভ করে “ জব্বারের বলিখেলা ” নামে।

বিশ্বব্যাপী বিখ্যাত ‘রেসলিং গেম’ই বাংলাদেশে কুস্তি খেলা নামে পরিচিতি। মূলতঃ শক্তিশালী বা বলবান লোকেরা অংশ নিয়ে থাকেন বলেই এই অঞ্চলে এটি বলের {শক্তি} খেলা। অংশ গ্রহনকারীরা পরিচিতি পায় বলি হিসেবে।“ জব্বারের বলিখেলা ”– টেকনাফ থেকে তেতুলিয়া, রূপসা থেকে পাথুরিয়া, সবার কাছে এখন এক নামে পরিচিত ও জনপ্রিয় এই আয়োজনটি।

প্রতি বাংলা সনের ১২বৈশাখ জব্বারের বলিখেলা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। চট্টগ্রাম মহানগরীর লালদীঘির ময়দানে বসে ঐতিহাসিক এই আসর।দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিপুল সংখ্যক বলি বা প্রতিযোগি এতে অংশ নেয়। এই খেলাকে ঘিরে লালদীঘি মাঠের আশেপাশে বিরাট এলাকা জুড়ে বসে বৈশাখী মেলা। দেশীয় এবং গৃহস্থালী এমন কোন পণ্য নেই, যা এই মেলায় পাওয়া যায়না।

কেবল বাংলাদেশই নয়, সম্ভবতঃ এশিয়ার সবচে বৃহত্তম বৈশাখী মেলা এটি। ঐতিহসিক লালদীঘির মাঠকে কেন্দ্র করে উত্তরে চেরাগী পাহাড় মোড় থেকে পূর্বে বক্সিহাট, দক্ষিনে কোতোয়ালী মোড় ছাড়িয়ে নিউ মার্কেট পর্যন্ত বিস্তৃত এই মেলার পরিধি। আনুষ্ঠানিকভাবে তিন দিনব্যাপী এই বলিখেলা ও মেলার কথা বলা হলেও প্রায় সপ্তাহব্যাপী জমজমাট থাকে এই আয়োজন।

কেনাকাটার পাশাপাশি প্রতি বছর জব্বারের বলিখেলা ও মেলা দেখতে দেশি-বিদেশি বিপুল সংখ্যক পর্যটকের সমাগম ঘটে। জাতীয়, স্থানীয় গণমাধ্যম ছাড়াও আন্তর্জাতিক মাধ্যমগুলোও এই আয়োজনের সংবাদ গুরুত্ব সহকারে প্রচার করে থাকে।

স্বদেশ24//আসি


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।