মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯, ০৬:৫১ পূর্বাহ্ন

হুয়াওয়ে মেট ২০ প্রো বনাম স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৯

হুয়াওয়ের মেট ২০ প্রো বাজারে নতুন। সে তুলনায় স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৯ কিছুটা পুরোনো। তবু স্যামসাংয়ের নোট সিরিজের স্মার্টফোনগুলোকে বলা হয় বড় পর্দার পাওয়ার হাউস। মানে পেশাজীবীদের জন্য কাজের দারুণ এক গ্যাজেট। মেট ২০ প্রোও কম যায় না। তিন লেন্সের ক্যামেরা, চমৎকার নকশা, বড় পর্দা এবং ৭ ন্যানোমিটারের দুর্দান্ত প্রসেসর আছে এতে। তুলনায় গেলে হাড্ডাহাড্ডি এক লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হওয়াই ভালো।

নকশা

হুয়াওয়ে মেট ২০ প্রোর সেলফি ক্যামেরায় ইনফ্রারেড সেন্সর ও ডট প্রজেক্ট কম্পোনেন্ট আছে, যার মাধ্যমে থ্রিডি ফেস আনলক কাজ করে। সে জন্য নকশার প্রয়োজনে আইফোন টেনের মতো পর্দার ওপরের দিকে বড় নচ যুক্ত করা হয়েছে। এদিকে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৯-এর নচ না থাকলেও পেছনে আঙুলের ছাপ শনাক্ত করার সেন্সর এবং ফেস আনলক ও চোখের আইরিশ শনাক্ত করার প্রযুক্তি আছে। আর মেট ২০ প্রোতে পর্দার নিচেই ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর যুক্ত করা হয়েছে। পাঁচটি রঙে পাওয়া যাচ্ছে মেট ২০ প্রো। অন্যদিকে গ্যালাক্সি নোট ৯-এ স্যামসাংয়ের গতানুগতিক পুরো কাচের নকশায় আর দেখতে সুন্দর কার্ভ ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। নকশায় মেট ২০ প্রোর যে অংশটি অন্য ফোনগুলোর চেয়ে আলাদা তা হলো, পেছনে এক বাক্সে তিন ক্যামেরা। এগিয়ে থাকবে হুয়াওয়ের মেট ২০ প্রো।

ডিসপ্লে

দুটি ফোনের পর্দার আকার কাছাকাছি। মেট ২০ প্রোতে ৬.৩৯ আর গ্যালাক্সি নোট ৯-এ ৬.৪ ইঞ্চির পর্দা। দুটি ফোনের পর্দাতেই অ্যামোলেড প্যানেল ব্যবহার করা হয়েছে। তবে মেট ২০ প্রোর রেজল্যুশন একটু বেশি। তবু ডিসপ্লেতে দুটি ফোন প্রায় সমানে সমান।

ক্যামেরা

স্মার্টফোনের ক্যামেরায় হুয়াওয়ে বরাবরই ভালো। মেট ২০ প্রোর পেছনে লাইকা ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ আছে। ৪০ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরার সঙ্গে থাকছে ২০ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড ও ৮ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো সেন্সর। তবে স্বল্প আলোতে বা রাতে ছবি তোলার ক্ষেত্রে নোট ৯-এর ক্যামেরা বেশি কার্যকর হবে। কারণ এতে রয়েছে ডুয়েল অ্যাপারচারের ২৪ মেগাপিক্সেলের দ্বৈত ক্যামেরা। উভয় ফোনের ক্যামেরায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করা হয়েছে। তবে বিভিন্ন কারিগরি ও নতুন নতুন সুবিধা মিলিয়ে হুয়াওয়ে মেট ২০ প্রোর ক্যামেরাকেই এগিয়ে রাখতে হয়।

কর্মক্ষমতা

হুয়াওয়ের নিজস্ব প্রসেসর কাইরিন ৯৮০ চিপসেটে তৈরি করা হয়েছে মেট ২০ প্রো। অ্যান্ড্রয়েডের জন্য এটিই প্রথম ৭ ন্যানোমিটারের প্রসেসর; যা অনেকটা আইফোনের প্রসেসরের মতোই দ্রুতগতির। এদিকে গ্যালাক্সি নোট ৯-এর প্রসেসর এক্সাইনস ৯৮১০ চিপসেট। হুয়াওয়ের দাবি, কাইরিন ৯৮০ চিপসেটটি ব্যবহারকারীকে ৫১ শতাংশ বেশি গতিতে কাজ করার সুবিধা দেবে। সে হিসেবে নোট ৯-কে সহজেই হারিয়ে দিতে পারে মেট ২০ প্রো।

ব্যাটারির ক্ষমতা

গ্যালাক্সি নোট ৯-এর ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি টানা ব্যবহারে প্রায় ১১ ঘণ্টা টিকে থাকতে পারে। অপরদিকে মেট ২০ প্রোর ব্যাটারি ৪২০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। নম্বরের হিসাবে ধরে নেওয়া যায় মেট ২০ প্রোর ব্যাটারিতে চার্জ থাকবে। এ ছাড়া মেট ২০ প্রোর সঙ্গে ৪০ ওয়াটের সুপার চার্জ কেব্‌ল থাকছে, যা ৩০ মিনিটে ৭০ শতাংশ চার্জ করতে পারে।

 


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।