শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১১:৪৬ অপরাহ্ন

প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সাঙ্গ হলো দুর্গোৎসব

চট্টগ্রাম : প্রতিমা বিসর্জন দিতে লাখো মানুষের জনসমুদ্রে পরিণত হয় পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত। ট্রাক নিয়ে দুপুর থেকে একে একে প্রতিমা নিয়ে শহরের নানা প্রান্ত থেকে সকলে গিয়ে মিলত হন পতেঙ্গায়।

শিশু থেকে তরুণ-তরুণী, যুবক থেকে বৃদ্ধ সব বয়সী মানুষের মিলনমেলায় পরিণত হয় সৈকত। ভক্তকণ্ঠের ‘জয় দুর্গা মায়ের জয়’ স্লোগানে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলতে থাকে প্রতিমা বিসর্জন। বিসর্জন দেওয়া প্রতিমাকে ভক্তদের কারও চোখে জল, কেউ শেষ বারের মতো প্রণাম করে বিদায় জানান।

আজ মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে এমন দৃশ্য চোখে পড়ে।

পতেঙ্গা সৈকত ছাড়াও নগরীর ফিরিঙ্গিবাজারের অভয়মিত্র ঘাটে, কাট্টলী সৈকতে, পাহাড়তলীর বিভিন্ন পুকুর-দীঘিতে, কালুরঘাটে কর্ণফুলী নদীতে প্রতিমা বিসর্জন হয়েছে বলে জানা গেছে।

এর আগে সকাল থেকে নগরীর মণ্ডপে মণ্ডপে বাজে বিদায়ী সুর। ষোড়শ উপাচারে দশমীর বিহিত পূজা, দর্পণ বিসর্জন, শাস্ত্রীয় আচার, দেবীর চরণে অঞ্জলি নিবেদন, দেশ-জাতি, ব্যক্তিগত ও পরিবারের সুখ, শান্তি, মঙ্গল কামনায় ব্যস্ত ছিলেন পূজার্থীরা।

চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরে এ বছর ২৭০টি মণ্ডপে পূজা হয়েছে। এর মধ্যে পতেঙ্গা সৈকতে ১২০-১৩০টি প্রতিমা বিসর্জন হয়েছে। রাতেও প্রতিমা বিসর্জনের সুবিধার্থে আলোকায়নসহ পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

পতেঙ্গা থানার ওসি উৎপল বড়ুয়া জানান, প্রতিমা বিসর্জন নির্বিঘ্নে করতে একটি অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে সৈকতে। তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে। র‌্যাবের টহল, নিয়মিত পুলিশ, নারী পুলিশ সদস্য, টুরিস্ট পুলিশসহ সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। রয়েছে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের টিমসহ ডুবুরিরাও। কোথাও কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

স্বদেশ টুয়েন্টিফোর//একে/এমএমআর


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।