বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহার সাথে থাকা সিফাত আর শ্রিপা এখন কোথায়?

পুলিশের গু’লিতে নি’হত মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নি’হত হবার ঘটনায় সংবাদ মাধ্যম ও ইন্টারনেট ভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগের প্লাটফর্মে যত আলোচনা হচ্ছে, এর বেশিরভাগই চলছে নিহত সাবেক সেনা কর্মকর্তা, টেকনাফ পুলিশকে কেন্দ্র করে।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশ এবং সামরিক বাহিনীর সম্পর্ক কোন দিকে গড়ায় সেদিকেও অনেকের নজর রয়েছে। যদিও দুই বাহিনীর প্রধান এরই মধ্যে পরিষ্কার করে দিয়েছেন যে মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নি’হত হবার বিষয়টি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

এসব আলোচনার ভিড়ে অনেকটাই চা’পা পড়ে গেছে নিহত সিনহা রাশেদের সাথে থাকা তিন শিক্ষার্থীর কথা। সিনহা মো. রাশেদ খানের সাথে কক্সবাজারে ডকুমেন্টারি তৈরির সময় যে তিনজন সাথে ছিলেন তাদের মু’ক্তির দাবিতে সহপাঠিরা নানা কর্মসূচী পালন করছে।

তিন শিক্ষার্থীর অবস্থাঃ এই তিনজন বেসরকারি স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ফিল্ম এন্ড মিডিয়া বিভাগের শিক্ষার্থী। তারা হলেন শিপ্রা দেবনাথ, সাহেদুল ইসলাম সিফাত ও তাহসিন রিফাত নূর।

এদের মধ্যে তাহসিন রিফাত নূরকে তাদের অভিভাবকের কাছে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বাকি দুইজন- শিপ্রা দেবনাথ ও সাহেদুল ইসলাম সিফাত এখন কক্সবাজার কারাগারে রয়েছেন। এর মধ্যে সাহেদুল ইসলাম সিফাতের বিরুদ্ধে দুটি মামলা ও শিপ্রা দেবনাথের বি’রুদ্ধে একটি মা’মলা দায়ের করেছে পুলিশ। পুলিশের গুলিতে যখন সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ নি’হত হন তখন সেখানে ছিলেন সাহেদুল ইসলাম সিফাত। সিফাতের বি’রুদ্ধে একটি মা’মলা হচ্ছে, সরকারি কাজে বাধা দেয়া ও হ’ত্যার উদ্দেশ্যে অ’স্ত্র দিয়ে গু’লি করার জন্য তাক করা।

মা’মলার অ’ভিযোগে বলা হয়েছে, সিনহা মোহাম্মদ রাশেদের সাথে যোগসাজশে সিফাত এ কাজ করেছে। তার বি’রুদ্ধে দায়ের করা আরেকটি মামলা মা’দকদ্রব্য আইনে। ওই মামলার অ’ভিযোগে বলা হয়েছে, বি’ক্রয়ের উদ্দেশ্যে অ’বৈধ মা’দক জাতীয় ই’য়াবা ট্যাবলেট এবং গাঁ’জা যানবাহনে নিজ হেফাজতে রাখার অ’পরাধ।

অন্যদিকে শিপ্রা দেবনাথের বি’রুদ্ধে মা’দকদ্রব্য নি’য়ন্ত্রণ আইনে একটি মা’মলা দায়ের করা হয়েছে। মা’মলার অ’ভিযোগে বলা হয়েছে, তিনি বিদেশী ম’দ, দেশীয় চো’লাই ম’দ ও গাঁ’জা নিজ হে’ফাজতে রেখেছেন।

পুলিশের ভাষ্য মতে, আত্মরক্ষার জন্য মেজর রাশেদ খানকে গু’লি করার পর তাদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে হি’মছড়ি নীলিমা রি’সোর্টে তাদের অস্ত্রের লাইসেন্স রয়েছে। এরপর সেটি খুঁ’জতে পুলিশ রিসোর্টে যায়।

মা’মলার অ’ভিযোগে বলা হয়েছে, ওই রিসোর্টে গিয়ে একটি ক’ক্ষে শিপ্রা দেবনাথ ও আরেকটি কক্ষে তাহসিন রিফাত নূরকে পাওয়া যায়। এজাহারে পুলিশ উল্লেখ করেছে, শিপ্রা দেবনাথের কক্ষ ত’ল্লাশি করে সেখানে বিদেশী ম’দ, দেশি চো’লাই ম’দ এবং গাঁ’জা পাওয়া যায়।


পোস্ট টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

স্পন্সরড নিউজ

সম্পাদক:
আসিফ সিরাজ

প্রকাশক:
এইচ এম শাহীন
চট্টগ্রাম অফিসঃ
এম বি কমপ্লেক্স (৩য় তলা), ৯০ হাই লেভেল রোড, ওয়াসা মোড়, চট্টগ্রাম।

যোগাযোগঃ
বার্তা কক্ষঃ ০১৮১৫৫২৩০২৫
মেইলঃ news.shodesh24@gmail.com
বিজ্ঞাপনঃ ০১৭২৪৯৮৮৩৯৯
মেইলঃ ads.shodesh24@gmail.com
কপিরাইট © ২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্বদেশ২৪.কম
সেল্ফটেক গ্রুপের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।